রোগ মুক্তির দোয়া

রোগ বা বালা মুচিবত কারোরই কাম্য নয়। এরপরও মাঝে মাঝে তা এসে আমাদেরকে কিছু শিক্ষা দিয়ে যায়। প্রত্যেকেই সুখি হতে চায়, শারীরিক ভাবে সুস্থ থাকতে চায়। আর এজন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে চাইতে হয় দোয়া করতে হয়। আজ আমাদের আলোচনার বিষয়বস্তু হচ্ছে রোগ মুক্তির দোয়া নিয়ে। নিন্মে আমরা আপনাদের জন্য রোগ মুক্তির দোয়া সমূহ থেকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দোয়টি প্রদান করলাম।

রোগ মুক্তির দোয়া

 

 

রোগ মুক্তির দোয়া

পৃথিবীতে মানুষের জন্য সবচেয়ে বড় নেয়ামত হচ্ছে সুস্থতা। এর চেয়ে বড় নেয়ামত আর কিছু হতে পারে না। যে মানুষটি অসুস্থ সে বুঝে সুস্থতার মূল্য কত। পৃথিবীর ধন-দৈলত, টাকা-পয়সা, সোনা-গয়না কোন কিছুতেই শান্তি নেই, যদি না শারীরিক সুস্থতা না থাকে। তাই আমাদের প্রত্যেকেরই সৃষ্টিকর্তার কাছে সব চেয়ে বড় চাওয়া বা কামনা হচ্ছে শারীরিক সুস্থতা। বর্তমান সময়ে প্রায় আমরা সবাই কম-বেশী অসুস্থ। তাই আমাদের সকলেরই উচিত মহান আল্লাহর কাছে সকল প্রকার রোগ মুক্তির জন্য দোয়া করা। নিন্মে তা প্রদত্ত হল:

 

আরবীঃ

‏ اللَّهُمَّ رَبَّ النَّاسِ أَذْهِبِ الْبَاسَ وَاشْفِ وَأَنْتَ الشَّافِ

لاَ شِفَاءَ إِلاَّ شِفَاؤُكَ، شِفَاءً لاَ يُغَادِرُ سَقَمًا

 

বাংলা উচ্চারণঃ ‘‘আল্লাহুম্মা রাব্বান্নাসি আযহিবিল বা’সা, ওয়াশফি ওয়াআন্তাশ-শাফী, লা শিফাআ ইল্লা শিফাউকা, শিফা’আল-লা য়্যুগাদিরু সাক্বামা’’।

 

অর্থঃ ইয়া আল্লাহ! হে আমাদের প্রতিপালক! তুমি কষ্ট দূর করে দাও এবং রোগ থেকে আরোগ্য দান কর। (যেহেতু) তুমিই রোগ নিরাময় কারী। তুমি ছাড়া আর কোনো রোগ নিরাময় দানকারী আর কেউ নেই, তুমি এমনভাবে রোগ নিরাময় দান কর, যেন তা সকল প্রকার রোগকে নির্মূল করে দেয়। রিয়াদুস সালিহীন ৯০২ | (বুখারী ও মুসলিম)

 

ফজিলতঃ প্রত্যেক নামাজের পর এই দোয়া পাঠ করলে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে। আমাদের সকলের উচিত রোগ মুক্তির দোয়া টি মুখস্ত করে তা প্রত্যহ পাঠ করা এবং পরিবারের সকলকে তা শিক্ষা দেওয়া। পরিবারের সকলেরই উচিত সকল প্রকার রোগ থেকে মুক্তির জন্য রোগ এ দোয়াটি মুখস্ত রাখা।

 

রোগ থেকে দ্রুত আরোগ্য প্রাপ্তির দোয়াঃ

আরবীঃ
اللَّهُمَّ رَبَّ النَّاسِ مُذْهِبَ الْبَاسِ اشْفِ أَنْتَ الشَّافِي لاَ شَافِيَ إِلاَّ أَنْتَ شِفَاءً لاَ يُغَادِرُ سَقَمًا
বাংলা উচ্চারণঃ
আল্লাহুম্মা রাব্বান-নাসি, মুজহিবাল বাসি, ইশফি আনতাশ-শাফি, লা শাফিয়া ইল্লা আনতা শিফায়ান লা ইয়ুগাদিরু সুক্বামা। (বুখারি)
ফজিলতঃ
আনাস (রাঃ) বলেছেন, রাসূল (সাঃ) অসুস্থ ব্যাক্তিদের উপর এই দোয়া পড়ে ফু দিতেন। অসুস্থ ব্যাক্তি দ্রুত আরোগ্য লাভ করতো। (বুখারী শরীফ খন্ড-২ পৃষ্ঠা-৮৫৫)

 

সর্বোপরি আমরা তখনই স্বর্থক, পাঠক যদি রোগ মুক্তির দোয়া টি মুখস্ত করে তা প্রতিদিন পাঠ করে। তো বন্ধুগন কেমন লেগেছে এবং পরবর্তী কোন দোয়াটি দিলে আপনাদের উপকারে আসবে তা কমেন্টস করে জানাবেন। আর বন্দুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আজ এ পর্যন্ত এতক্ষন আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। আল্লাহ হাফেজ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x
error: Content is protected !!